ঢাকা ১০:৪৩ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ৮ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনামঃ
শ্যামনগরে বয়স্ক,প্রতিবন্ধী ভাতার বহি ও জটিল রোগে আক্রান্তদের মাঝে চেক বিতরণ সাতক্ষীরায় থানা ঘেরাওর চেষ্টা কোটা আন্দোলনকারীদের, পুলিশের লাঠিচার্জ স্বাধীনতা বিরোধী স্লোগানের নিন্দা জানিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট বার শ্যামনগর কাশিমাড়ী সুপেয় পানির ট্যাংক বিতরণ বসন্তপুর নদীবন্দর পরিদর্শন করলেন বিআইডব্লিউটি ও ভুমি মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা মুক্তিযোদ্ধাদের সর্বোচ্চ সম্মান দেখাতে হবে : প্রধানমন্ত্রী শ্যামনগরে স্মাট জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণ কার্যক্রম উদ্বোধন নওগাঁর মন্দা বদ্দপুরে তালগাছ চারা রোপন শুভ উদ্বোধন করেন এমপি গামা তালায় দলিত জনগোষ্ঠীর আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন শীর্ষক মতবিনিময় অনুষ্ঠিত দেবহাটায় নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে উঠান বৈঠক

বসন্তপুর নদীবন্দর দ্রুততম সময়ে চালু হবে- নৌ ও পরিবহন প্রতিমন্ত্রী

  • Sound Of Community
  • পোস্ট করা হয়েছে : ০৮:১৮:৪০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৫ জুলাই ২০২৪
  • ৫০ জন পড়েছেন ।

হাফিজুর রহমান শিমুল

সাতক্ষীরা জেলার কালিগঞ্জের বসন্তপুর নদীবন্দর দ্রুত চালুর প্রত্যাশায় বসন্তপুর নদীবন্দর বিষয়ক কমিটির উদ্যোগে সূধী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) বিকাল সাড়ে ৪টায় উপজেলার বসন্তপুর রিভার ড্রাইভ ইকো পার্কে সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন সংসদ সদস্য এসএম আতাউল হক দোলন। প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন নৌ- পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী (এমপি)। বক্তব্যে তিনি বলেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা কথা দিলে কথা রাখেন, তিনি যেহেতু বসন্তপুর নদীবন্দর উদ্বোধন করেছেন মানেই এটা হয়ে গেছে। ইতিমধ্যেই ভারতের মধ্যেও কথা ও কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন এবং অচিরেই উন্নয়ন প্রকল্প শুরু হবে। এই জনপদের বেড়িবাঁধ সংস্কার, সুপেয় পানিসহ জনকল্যাণমুখী কাজ এগিয়ে যাবে দুর্বার গতিতে। মানুষের জীবন জীবিকার লক্ষ্যে এমপি আতাউল হক দোলনের মাধ্যমে যথাযথ কাজ হবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশের কল্যাণে দুই দুইবার ভারত সফর করেছেন, সেখানে ট্রেন, বিমান ও নৌ চলাচল করার পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। ভারত যুদ্ধকালীন সময়ে আমাদের সহযোগিতা করেছিলেন, একারণেই আমাদের বন্ধুত্ব অটুট রাখতে চাই। তাই বলে দেশের স্বাধীনতা সার্ব ভৌমত্ব বিলিয়ে দিয়ে নয়। বরং জামায়াত বিএনপিই দেশের সার্বভৌমত্ব নিয়ে খেলা করে। তাদেরকে প্রতিহত করতে হবে। জয়তু শেখ হাসিনা যখন আছেন সেখানে বাংলাদেশের মাটি মানুষের উন্নয়ন উৎপাদন চলমান থাকবে। অনুষ্ঠানে সন্মানিত অতিথির বক্তব্য রাখেন সংসদ সদস্য অধ্যাপক ডাঃ আফম রুহুল হক, বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সংসদ সদস্য ফিরোজ আহমেদ স্বপন, সংসদ সদস্য আশরাফুজ্জামান আশু, সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য সেজুতি পারভীন লায়লা, জেলা আ’লীগের সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য একেএম ফজলুল হক, জেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম, শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন কালিগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ মেহেদী হাসান সুমন, বিআরডব্লিউ এর পরিচালক কাজী ওয়াকিল নেওয়াজ পলাশ, স্বাগত বক্তব্য রাখেন বসন্তপুর নদীবন্দর বিষয়ক কমিটির আহবায়ক এজাজ আহম্মেদ স্বপন, বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান শেখ ইকবাল আলম বাবলু, ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি সাবেক চেয়ারম্যান আশরাফুল হোসেন খোকন প্রমুখ। সমগ্র অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন কালিগঞ্জ উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান এনামুল হোসেন ছোট।এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক মুহাম্মদ হুমায়ুন কবির, সাতক্ষীরা জেলা পুলিশ সুপার মতিউর রহমান সিদ্দিকী, ভোমরা সিএন্ডএফ এর সভাপতি কাজী নওশাদ দেলাওয়ার রাজু, সেক্রেটারী মাকসুদ আলীসহ সাতক্ষীরা জেলা আ’লীগ ও উপজেলা আ’লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ, জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাবৃন্দ, ভোমরা সিএন্ডএফ এ্যাসোসিয়েশনের কর্মকর্তাবৃন্দ, সাতক্ষীরা ও কালিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি সম্পাদকসহ সাংবাদিকবৃন্দ, বীর মুক্তিযোদ্ধাবৃন্দ, ইউপি চেয়ারম্যানবৃন্দ ও সুধীবৃন্দ।

Tag :
রিপোর্টার সম্পর্কে

Sound Of Community

জনপ্রিয় সংবাদ

শ্যামনগরে বয়স্ক,প্রতিবন্ধী ভাতার বহি ও জটিল রোগে আক্রান্তদের মাঝে চেক বিতরণ

বসন্তপুর নদীবন্দর দ্রুততম সময়ে চালু হবে- নৌ ও পরিবহন প্রতিমন্ত্রী

পোস্ট করা হয়েছে : ০৮:১৮:৪০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৫ জুলাই ২০২৪

হাফিজুর রহমান শিমুল

সাতক্ষীরা জেলার কালিগঞ্জের বসন্তপুর নদীবন্দর দ্রুত চালুর প্রত্যাশায় বসন্তপুর নদীবন্দর বিষয়ক কমিটির উদ্যোগে সূধী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) বিকাল সাড়ে ৪টায় উপজেলার বসন্তপুর রিভার ড্রাইভ ইকো পার্কে সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন সংসদ সদস্য এসএম আতাউল হক দোলন। প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন নৌ- পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী (এমপি)। বক্তব্যে তিনি বলেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা কথা দিলে কথা রাখেন, তিনি যেহেতু বসন্তপুর নদীবন্দর উদ্বোধন করেছেন মানেই এটা হয়ে গেছে। ইতিমধ্যেই ভারতের মধ্যেও কথা ও কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন এবং অচিরেই উন্নয়ন প্রকল্প শুরু হবে। এই জনপদের বেড়িবাঁধ সংস্কার, সুপেয় পানিসহ জনকল্যাণমুখী কাজ এগিয়ে যাবে দুর্বার গতিতে। মানুষের জীবন জীবিকার লক্ষ্যে এমপি আতাউল হক দোলনের মাধ্যমে যথাযথ কাজ হবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশের কল্যাণে দুই দুইবার ভারত সফর করেছেন, সেখানে ট্রেন, বিমান ও নৌ চলাচল করার পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। ভারত যুদ্ধকালীন সময়ে আমাদের সহযোগিতা করেছিলেন, একারণেই আমাদের বন্ধুত্ব অটুট রাখতে চাই। তাই বলে দেশের স্বাধীনতা সার্ব ভৌমত্ব বিলিয়ে দিয়ে নয়। বরং জামায়াত বিএনপিই দেশের সার্বভৌমত্ব নিয়ে খেলা করে। তাদেরকে প্রতিহত করতে হবে। জয়তু শেখ হাসিনা যখন আছেন সেখানে বাংলাদেশের মাটি মানুষের উন্নয়ন উৎপাদন চলমান থাকবে। অনুষ্ঠানে সন্মানিত অতিথির বক্তব্য রাখেন সংসদ সদস্য অধ্যাপক ডাঃ আফম রুহুল হক, বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সংসদ সদস্য ফিরোজ আহমেদ স্বপন, সংসদ সদস্য আশরাফুজ্জামান আশু, সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য সেজুতি পারভীন লায়লা, জেলা আ’লীগের সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য একেএম ফজলুল হক, জেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম, শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন কালিগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ মেহেদী হাসান সুমন, বিআরডব্লিউ এর পরিচালক কাজী ওয়াকিল নেওয়াজ পলাশ, স্বাগত বক্তব্য রাখেন বসন্তপুর নদীবন্দর বিষয়ক কমিটির আহবায়ক এজাজ আহম্মেদ স্বপন, বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান শেখ ইকবাল আলম বাবলু, ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি সাবেক চেয়ারম্যান আশরাফুল হোসেন খোকন প্রমুখ। সমগ্র অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন কালিগঞ্জ উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান এনামুল হোসেন ছোট।এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক মুহাম্মদ হুমায়ুন কবির, সাতক্ষীরা জেলা পুলিশ সুপার মতিউর রহমান সিদ্দিকী, ভোমরা সিএন্ডএফ এর সভাপতি কাজী নওশাদ দেলাওয়ার রাজু, সেক্রেটারী মাকসুদ আলীসহ সাতক্ষীরা জেলা আ’লীগ ও উপজেলা আ’লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ, জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাবৃন্দ, ভোমরা সিএন্ডএফ এ্যাসোসিয়েশনের কর্মকর্তাবৃন্দ, সাতক্ষীরা ও কালিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি সম্পাদকসহ সাংবাদিকবৃন্দ, বীর মুক্তিযোদ্ধাবৃন্দ, ইউপি চেয়ারম্যানবৃন্দ ও সুধীবৃন্দ।